জগন্নাথপুরের ইউপি চেয়ারম্যান শেরিনকে জড়িয়ে অপ-প্রচারে এলাকাবাসীর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুল হক শেরিনকে জড়িয়ে মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও মানহানিকর অপ-প্রচারে এলাকাবাসীর মধ্যে নিন্দার ঝড় বইছে।

ইউনিয়নের ভোটারদের মধ্যে শতস্ফুর্ত মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। ভোটারদের দাবি মাহবুবুল হক শেরিনের মত একজন সৎ আদর্শ ও ন্যায়পরায়ণ চেয়ারম্যান পাওয়া ইউনিয়নবাসীর জন্য সবচেয়ে বড় পাওয়া। যিনি শুধু ইউপি চেয়ারম্যান নয়, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হওয়ার যোগ্যতা রাখেন। এরপর নিজ ইউনিয়নবাসীর জন্য সেবা করতে দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছেন।

ইউনিয়নবাসী আরো বলেন, আমরা যেনে-শুনে কোন দুর্নীতিবাজ বা খারাপ লোক কে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করিনি। নীতি, আদর্শ, ন্যায় পরায়নতা, সৎ ও যোগ্য লোক দেখে মাবুবুল হক শেরিনকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করেছি। এরকম মহান ব্যাক্তির বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচারে আমরা ইউনিয়নবাসী তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানাই।

সচেতন ইউনিয়নবাসী, মিথ্যা অপ্র-প্রচারকারীদের উদ্দেশ্যে বলেন, চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সমালোচনা না করে আমরা নিজেরা নিজেদের সমালোচনা করি। তারা আরো বলেন, সমালোচকরাও আমাদের ভাই। চেয়ারম্যানের উন্নয়নমুল কাজের সহযোগীতা করে ইউনিয়নের উন্নয়কে তরানিত্ব রাখতে তাদের প্রতি অনুরোধ জানান।

এব্যাপারে মিরপুর ইউপির বিভিন্ন ওয়ার্ডের বিভিন্ন শ্রেণী- পেশার লোকজনদের সাথে আলাপকালে, মিরপুর বাজার কমিটির সভাপতি সাহিদ মিয়া জানান, মাহবুবুল হক শেরিন একজন ভালো লোক তিনির বিরুদ্ধে যাদের লাগ আছে তারাই তিনির বিরুদ্ধে লিখবে এটাই স্বাভাবিক।

ইউনিয়নের বড়কাপন গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী দয়াল জুবের জানান, চেয়ারম্যান শেরিন একজন ভালো লোক। তিনির মত একজন সৎ জনপ্রতিনিধি পাওয়া আমাদের জন্য গৌরবের বিষয়। আমার জানামতে তিনির নীতি ও আদর্শের তুলনা হয়না। আমি তাহার নেক হায়াত ও সুস্থতা কামনা করি।

আলাপচারিতায়, শাসনহবী গ্রামের তাজুল ইসলাম বলেন, আমাদের চেয়ারম্যান একজন অসাধারণ মানুষ, গরিব দুঃখি মানুষের পাশে দাড়াঁনো তাঁর নেশা ও পেশা। তিনির বিরুদ্ধে অপ-প্রচারে আমরা তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। তাছাড়াও ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের গড়গড়ি গ্রামের মামুনুর রশীদ জানান, চেয়ারম্যান সাহেব নিঃসন্দে একজন ভালো লোক। সরকারের আদেশ পালন করতে গিয়ে ও মাদ্রাসার এতিমখার মাল হেফাজত করতে গিয়ে সমালোচিত হন। এ ধরনের ভালো কাজ করলে সমালোচিত হওয়া স্বাবিক। ভালো কাজ করার জন্যই আমরা চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেছি।

ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের লহরী গ্রামের ফরহাদ আহমদ জানান, আমার জানামতে চেয়ারম্যান একজন সৎ ও ন্যায়পরায়ন ব্যাক্তি। তিনির বিরুদ্ধে অনলাইন- ফেসবুকে লেখালেখির জন্য আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

এব্যাপারে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি মুহিব উদ্দিন সেলিম জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পরিকল্পনামন্ত্রীর উন্নয়ন কাজ এগিয়ে নিতে সৎ ও কর্মট ব্যক্তি মাহবুবুল হক শেরিনের প্রয়োজন। কারন উন্নয়ন কাজের অর্থ থেকে পকেটে ডুকানুর চিন্তাভাবনা যার নেই।

উপজেলার ৩নং মিরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুবুল হক শেরিন জানান, আমার জীবনে যেনে-শুনে কোন অন্যায় কাজে আমি সমর্তন করিনি। সবাই দোয়া করবেন অদূর ভবিষ্যতে আল্লাহ যেন নিজেকে সব ধরনের অন্যায় ও দুর্নীতি থেকে মুক্ত রাখেন এবং বাকি জীবন মানুষের সেবায় নিয়োজিত রাখেন।

ইউনিয়নবাসীর কাছে আমার অনুরোধ দুষে গুণে মানুষ, শয়তান আমাদের পিছু লেগে আছে। সোস্যাল মিডিয়াতে আমার বিরুদ্ধে যা ভাইরাল হয়েছে তার বিরুদ্ধে আমার ফেইসবুকে বিস্তারিত লেখা রয়েছে। তাছাড়াও সিলেট নগরীতে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিস্তারিত ব্যাখ্যা ও মিথ্যা অপ-প্রচারের জবাব দেওয়া হয়েছে।

চেয়ারম্যান আরো জানান, আমি ব্যক্তি শেরিন নয়, মিরপুর ইউনিয়নবাসীর সেবক ও প্রতিনিধি। সুতারাং পিছনে সমালোচনা না করে আলোচনার টেবিলে এসে সমস্যা ও সম্ভাবনা সহ সব ধরনের পরামর্শ দিতে ইউনিয়নবাসীর প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

ফেসবুক কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: