বিশ্বনাথে মারধর করে টাকা লুটের ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের কাদিপুর গ্রামে রাতের আধাঁরে দোকান কর্মচারীরে মারধর করে দোকানের ক্যাশ লুটের ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

কাদিপুর গ্রামের মৃত আকবর আলীর পুত্র শিহাব উদ্দিন বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে থানায় অভিযোগটি দায়ের করেন। বাদীর লিখিত অভিযোগে একই গ্রামের মৃত মাহমদ আলীর পুত্র সানুর আলী (৪৮) ও আবদুল হক (৪৫)কে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

বাদী তার লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, গত ১০ আগষ্ট সোমবার রাত ৯টার দিকে দোকান বন্ধ করে বাদীর পাশ্ববর্তী গ্রামের ছুরত আলীর বাড়িতে নষ্ট হওয়া ফ্রিজ দেখতে যান। ফ্রিজ দেখা থেকে বাদী তার নিজ বাড়িতে ফেরার পথিমধ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে আসার সাথে সাথেই প্রথম অভিযুক্ত সানুর আলী বাদীকে ঝাপটে ধরে শিহাবের কাছে থাকা দোকানের ৫১ হাজার টাকা ভয় দেখিয়ে নিয়ে নেয় এবং স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে থাকা একটি খোলা রুমে নিয়ে বাদীর মাথায় দারালো দা দিয়ে আঘাত করে অভিযুক্ত সানুর আলী।

এরপর বাদীকে এলোপাথারিভাবে ঘুষি-লাথি মারিতে তাকে সানুরের সঙ্গিয় অপর অভিযুক্ত আবদুল হক। এসময় বাদীর আত্তচিৎকার শুনে স্বাক্ষীগনসহ এলাকার লোকজন এগিয়ে আসলে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায় এবং তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়।

বাদী তার লিখিত অভিযোগে আরো উল্লেখ করেছেন, প্রথম অভিযুক্ত সানুর আলী পূর্ব থেকেই একজন দূর্ধর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ও চুরাকারবারী। এব্যাপারে তার বিরুদ্ধে আদালতে একাধিক মামলা বিচারাধীন রয়েছে। আর দ্বিতীয় অভিযুক্ত আবদুল হক হচ্ছেন সানুর আলীর ছোট ভাই। আর সানুরের সকল অপরাধমূলক কর্মকান্ডে আবদুল হক তার বড় ভাই সানুরকে সার্বিক সহযোগীতা করে থাকে।

এঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়েরের সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামীম মুসা বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে এব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

ফেসবুক কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: