সুনামগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ চৌধুরী মুসনুদ স্মরণে শোকসভা ও মিলাদ মাহফিল সম্পন্ন

আল-হেলাল, সুনামগঞ্জ: সুনামগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ চৌধুরী মুসনুদ স্মরণে শোকসভা ও মিলাদ মাহফিল সম্পন্ন হয়েছে। ১৯ সেপ্টেম্বর শনিবার দুপুরে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সুনামগঞ্জ জেলা ইউনিট কমান্ড কার্যালয়ে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা কমান্ড ও আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা শাখার উদ্যোগে এই শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা কমান্ড এর সাবেক কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মজিদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শোকসভায়, প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ চৌধুরী মুসনুদ এর কর্মময় জীবনের নানা দিক উল্লেখ করে আলোচনা করেন, শহরের আরপিননগর নিবাসী মুক্তিযোদ্ধা মালদার আলী, মুক্তিযোদ্ধা নুর মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা নিছবর আলী, মুক্তিযোদ্ধা মন্তাজ আলী, রঙ্গারচর ইউপি সদস্য আনোয়ার হোসেন বাবুল, ব্যবসায়ী আব্দুল মতিন, সাবেক ইউপি সদস্য ফয়জুল ইসলাম।

আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি সাংবাদিক আল-হেলাল, সদর উপজেলা শাখার সভাপতি কাজী জসিম কামাল, সাধারন সম্পাদক মোস্তাক আহমদ রুমেল, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও মোহনপুর ইউপি সদস্যা স্বপ্না বেগম, আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সমবায় সমিতির সভাপতি নুরুল আমিন, সাধারন সম্পাদক মোঃ নজরুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হুমায়ুন কবীর, মমিনুল রহমান সানি ও মোবারক হোসেন প্রমুখ।

উল্লেখ্য সুনামগঞ্জ শহরের এক সময়ের পরিচিত প্রিয়মুখ,৭১ সালে বালাট সাব সেক্টরের বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ চৌধুরী মুসনুদ (৬৯) গত ৯ সেপ্টেম্বর বুধবার রাত ৮টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় নিউইয়র্ক এর লং আইল্যান্ড শহরের নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন।

তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ ক্যান্সার ব্যধিতে ভূগছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী কন্যা ভাই বোনসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন। ১০ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার নামাজে জানাযা শেষে ওয়াশিংটন মেমোরিয়েল কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ চৌধুরী মুসনুদ, সুনামগঞ্জ মহকুমা আওয়ামীলীগের প্রথম কার্যকরী কমিটির সদস্য বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, আওয়ামীলীগ নেতা ও মুক্তিযুদ্ধে বালাট সাবসেক্টরে অন্যতম পরিচালক সুনামগঞ্জ পৌরসভার আরপিননগর নিবাসী মরহুম আব্দুল আহাদ চৌধুরী তারা মিয়ার ২য় পুত্র এবং মহকুমা আওয়ামীলীগের প্রথম কার্যকরী কমিটির সাধারন সম্পাদক বিশিষ্ট কবি লেখক গবেষক নাট্যকার গীতিকার সুরকার সাংবাদিক রাজনীতিবিদ ও মুক্তিযুদ্ধে বালাট সাবসেক্টরে প্রচার সমন্বয়কারী মরহুম আব্দুল হাই চৌধুরী গোলাপ মিয়ার ভ্রাতুষ্পুত্র। মুসনুদ চৌধুরীর আপন বড় ভাই মরহুম জামসেদ চৌধুরীও একই সাব সেক্টরের মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন।

দেশে অবস্থানরত পাড়া প্রতিবেশী, আত্মীয় স্বজন, বন্ধু বান্ধবসহ পরিচিত মহলে তাঁর মৃত্যু সংবাদে শহরময় শোকের ছায়া নেমে আসে। আব্দুল আজিজ চৌধুরী মুসনুদ এর মৃত্যু সংবাদে শহরের বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে শোক প্রকাশ ও তাঁর শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন, মুক্তিযোদ্ধা সুনামগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট আফতাব উদ্দিন আহমদ, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এডভোকেট বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা মতিউর রহমান, জেলা ইউনিট কমান্ডের সাবেক সদস্যসচিব মুক্তিযোদ্ধা মালেক হোসেন পীর, জেলা ইউনিটের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আবু সুফিয়ান, মুক্তি সংগ্রাম স্মৃতি ট্রাস্ট এর সাবেক সাধারন সম্পাদক ছালিক আহমদসহ স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ।

তারা স্বাধীন বাংলাদেশ বিনির্মাণে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ চৌধুরী মুসনুদ ও তার পরিবারের সক্রিয় সকল সদস্যদের অবদানের কথা শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন এবং মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ চৌধুরী মুসনুদ, যুক্তরাষ্ট্রস্থ সুনামগঞ্জ সমাজ কল্যাণ সমিতির সভাপতি ৭৫’র পরবর্তী সুনামগঞ্জ মহকুমা ছাত্রলীগের দুর্দিনের কান্ডারী মারুফ চৌধুরী, মহকুমা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক কলেজ ছাত্র সংসদদের এজিএস আনোয়ার চৌধুরী আনুল এবং জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মাজেদ চৌধুরীর মেজো ভাই।

মরহুমের ফুফাতো ভাই নিউইয়র্ক আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও সুনামগঞ্জ মহকুমা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি নুরুজ্জামান চৌধুরী শাহী, জেলা আওয়ামীলীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য সুনামগঞ্জ প্রবাসী সমিতি সুপ্রবাস এর সভাপতি ইমানুজ্জামান চৌধুরী মহী ও বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কার্যকরী সংসদের সাবেক সদস্য ও দৈনিক সুনামগঞ্জ প্রতিদিন সম্পাদক আহমদুজ্জামান হাসানসহ প্রবাসে অবস্থানরত আত্মীয় স্বজনরাও মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ চৌধুরী মুসনুদ এর আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দেশবাসীর নিকট দোয়া চেয়েছেন।

ফেসবুক কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: