হবিগঞ্জের তেঘরিয়ায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ আহত ১৫

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: হবিগঞ্জ সদর উপজেলার ৩নং তেঘরিয়া ইউনিয়নের গবিন্দপুরে জায়গার সিমানা নিয়ে সালিশ বৈঠক চলাকালে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে টেঁটাবিদ্ধ নারীসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।

গুরুত্বর আহত অবস্থায় রেখা বেগম (৫৫) নামে এক নারীকে সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। বাকিদের হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে গবিন্দপুর গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে।

এলাকা সূত্রে জানা যায়, গ্রামের মরতুজ আলীর সাথে একই গ্রামের টেনু মিয়া মেম্বারের জায়গা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। দীর্ঘদিনের বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় উভয় পক্ষের সার্ভেয়ারসহ ছিদ্দিক মিয়ার বাড়িতে সালিশ বৈঠক বসে। বৈঠকে তেঘরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আনু মিয়াও উপস্থিত ছিলেন। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ইউপি সদস্য টেনু মিয়া ক্ষিপ্ত হয়ে মুরুব্বিদের দেয়া সীমানা পিলার উপড়ে ফেলে দেন। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। এতে টেঁটাবিদ্ধসহ উভয় পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হন। খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করেন।

আহতরা হলেন, মরতুজ আলীর স্ত্রী টেঁটাবিদ্ধ রেখা বেগম (৪৮), ইব্রাহিম মিয়া (৪৭), মরতুজ আলী (৫৫), জুয়েল মিয়া (২৫), সেলিম মিয়া (২৩), সুমা আক্তার (৩৫), ঝুমা আক্তার (১৮), শাহিন মিয়া (২৩), আহম্মদ আলী (২৬), মনির মিয়া (২৫) ও শাকিলা (৩০)।

ফেসবুক কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: